লেনদেন বন্ধের দাবি বিনিয়োগকারীদের

10

করোনা আতঙ্কে বিশ্বের বড় বড় স্টক এক্সচেঞ্জ যেখানে বন্ধ রেখেছে সেখানে এদেশের স্টক এক্সচেঞ্জ বন্ধ করা হচ্ছে না। লেনদেন চালু হওয়ার পরপরই সূচকের ব্যাপক দরপতনে দিনের পর দিন পুঁজি হারাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা।

তাইপরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছেন বিনিয়োগকারীরা। আজ (বৃহস্পতিবার, ১৯ মার্চ) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) মতিঝিল কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে লেনদেন বন্ধ রাখার জন্য দাবি জানানো হয়।

এ ব্যাপারে ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক শেয়ারসূচককে বলেন, করোনাভাইরাসের আতঙ্কে দেশের শেয়ারবাজারে ব্যাপক দরপতন হচ্ছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দরপতন রোধে লেনদেন বন্ধ রাখলেও আমাদের দেশের স্টক এক্সচেঞ্জ বন্ধ করা হচ্ছে না।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে ইতিমধ্যে আমরা ডিএসই’র সঙ্গে সাক্ষাত করে লেনদেন বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছি। কিন্তু তারা লেনদেন বন্ধ রাখছে না। অন্যদিকে আমাদের পুঁজি হারিয়ে যাচ্ছে। তাই লেনদেন বন্ধ রাখার দাবিতে আমরা বিনিয়োগকারীরা আজ বিক্ষোভ করেছি।

তিনি আরো বলেন, যদি ডিএসই’র লেনদেন অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা না হয় তাহলে আমরা ডিএসই’র নিকুঞ্জ ভবন ঘেরাও কর্মসূচী পালন করবো।